Business is booming.

রবি ঠাকুরের কবিতা আবৃত্তি করবেন রাজ্যপাল

অরুণাভ রাহারায়, কলকাতা: তিনি কবিতা লেখেন। তিনি আবৃত্তি করেন। তিনি বাংলার রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। তাঁর আমন্ত্রণে বৃহস্পতিবার বিকেল চারটের সময় রাজভবনে জমায়েত হয়েছিলেন বিদ্বজ্জনরা। তাঁদের সঙ্গে রাজ্যপালের সাক্ষাৎ নিয়ে নানা মহলে জল্পনা তৈরি হয়েছিল যে, তাঁদের কথায় হয়তো উঠে আসবে পঞ্চায়েত নির্বাচন ঘিরে রাজ্যের পরিস্থিতি৷

কিন্তু, না! রাজ্যপালের সঙ্গে বিদ্বজ্জনদের বৈঠকে উঠে এলো শুধুই কাব্যিক কথাবার্তাই। আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন শঙ্খ ঘোষ, পবিত্র সরকার, সুকান্ত চৌধুরী, জয় গোস্বামী, বাণী বসু প্রমুখ।

পবিত্র সরকার kolkata24x7-কে বলেন, “অনেকদিন থেকেই আমাদের সঙ্গে বসার ইচ্ছে ছিল ওনার। তাই সৌজন্য সাক্ষাৎ হল। উনি রবীন্দ্রনাথের কবিতা আবৃত্তি করবেন। সেই আবৃত্তির একটা সিডি হবে। সেই নিয়েও কথা হল। রাজনৈতিক প্রসঙ্গ আসেনি। ওনার কিছু বইপত্র উপহার দিলেন।”

বাণী বসু বলেন, “কোনও পলিটিক্যাল কথাবার্তা হয়নি। উনি ভালো কবিতা লেখেন। নিজের বই দিলেন আমাদের। এটা নিছকই চা-চক্র। এর বাইরে কিছু নয়।”

পঞ্চায়েত ভোটের ঠিক আগে রাজ্যপালের সঙ্গে বিদ্বজ্জনদের ‘নিছক আড্ডা’য় বিস্মিত অনেকেই। এ প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে রাজ্যের পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় বলেন, “যদি নির্ভেজাল এবং অরাজনৈতিক আড্ডা হয় তাহলে তো কোনও ক্ষতি নেই। যিনি আমন্ত্রণ করেছেন এবং যাঁরা আমন্ত্রণ রক্ষা করেছেন, আমি ব্যাপারটা তাঁদের উপরেই ছেড়ে দিতে চাই।”

©Kolkata24x7 এই নিউজ পোর্টাল থেকে প্রতিবেদন নকল করা দন্ডনীয় অপরাধ৷ প্রতিবেদন ‘নকল’ করা হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে
—-

—-

Loading...
You might also like