Business is booming.

রবীন্দ্রভারতীর কলা বিভাগে ইন্টার্নশিপ বাধ্যতামূলক

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: কর্মক্ষেত্রে বাস্তব অভিজ্ঞতার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে বাধ্যতামূলকভাবে ইন্টার্নশিপ চালুর পরিকল্পনা গ্রহণ করতে চলেছে রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷ এমনই জানিয়েছেন এই বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী৷

তাঁর মতে, ছাত্র-ছাত্রীরা যদি ইন্টার্নশিপ না করে শুধু পুঁথিগত বিদ্যার উপর ভরসা করেন, তা হলে পরবর্তীকালে কর্মক্ষেত্রে তাঁরা বিভিন্ন ধরনের অসুবিধার সম্মুখীন হবেন৷ আগে থেকেই ভিস্যুয়াল আর্টসের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্যাম্পাসিং ব্যবস্থা রয়েছে৷ এ বার কলা বিভাগের পড়ুয়াদের জন্য বাধ্যতামূলক ইন্টার্নশিপ ব্যবস্থা আনতে উদ্যোগী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷ বিশেষত, স্নাতকোত্তর কোর্সের ক্ষেত্রে৷ ২০১৮-’১৯ শিক্ষাবর্ষ থেকেই এই ইন্টার্নশিপ চালু করা হতে পারে বলেও জানিয়েছেন উপাচার্য৷

এই ইন্টার্নশিপ কলা বিভাগের অর্থনীতি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান ও সাহিত্যের ক্ষেত্রে শুরুর কথা ভাবা হয়েছে বলে জানানে হয়েছে৷ অর্থনীতির ক্ষেত্রে বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি ব্যাংক, সংস্থা, স্টক এক্সচেঞ্জ সংস্থা ও রিজার্ভ ব্যাংকের সঙ্গে কথা বলে প্রতিবছর কিছু সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রীর ইন্টার্নশিপের জন্য পাঠানো যায় কি না, তা দেখছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷ এ ছাড়া, সাহিত্য ও রাষ্ট্রবিজ্ঞানের ক্ষেত্রেও বিভিন্ন সংস্থা ও বিধানসভার সঙ্গে কথা বলে ইন্টার্নশিপ চালু করার কথা ভাবছে কর্তৃপক্ষ৷ এই ইন্টার্নশিপ বাধ্যতামূলকভাবে চার থেকে ছয় সপ্তাহের জন্য হতে পারে বলে জানানো হয়েছে৷

এই বিশ্ববিদ্যালয়ে কয়েক বছর আগেই চালু হয়েছে থিয়েটার রেপার্টরি৷ এ বার নৃত্য ও সঙ্গীতের ক্ষেত্রেও নতুন রেপার্টরি চালুর কথা ভাবছে রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়৷ এই বিষয়ে উপাচার্য বলেন, ‘‘আজকের দিনে সঙ্গীত গাইতে জানলেই হয় না৷ তা উপস্থাপন করতে জানাটাও জরুরি৷’’

তবে, এখনই অন্যান্য রাজ্য ও বিদেশ থেকে ছাত্র-ছাত্রীদের আনতে পারছে না রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়৷ কেন? সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী বলেন, ‘‘আমরা চাই ফাইন আর্টসে অন্যান্য রাজ্য থেকে, অন্যান্য দেশ থেকে ছাত্র-ছাত্রীরা আসুক৷ কিন্তু, সেক্ষেত্রে কিছু প্রতিবন্ধকতা রয়েছে৷ সেগুলো কাটিয়ে না উঠলে আমাদের এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়া মুশকিল৷’’

একই সঙ্গে উপাচার্য বলেন, ‘‘বাইরের রাজ্য বা দেশ থেকে যাঁরা আসবেন, তাঁদের থাকার জন্য হস্টেলের প্রয়োজন৷ সেটা যতক্ষণ না আমরা করতে পারছি ততক্ষণ এই বিষয়ে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া সম্ভব নয়৷ যদিও এখন ফাইন আর্টস, রাষ্ট্রবিজ্ঞানে অনেক ভিন রাজ্যের ছাত্র-ছাত্রী রয়েছেন৷’’

অন্যান্য রাজ্য ও বিদেশ থেকে বেশি সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রী আনতে না পারলেও পূর্ব ভারতের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক বিদেশি পড়ুয়া রয়েছে রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে৷ এই কথার পাশাপাশি রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য জানিয়েছেন, এই মুহুর্তে বিদেশের ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা ১৮২ জন৷ তাঁদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক পড়ুয়া বাংলাদেশ থেকে এসেছেন৷ এ ছাড়া, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, জাপান, চিন, স্পেন সহ অন্যান্য দেশের পড়ুয়ারাও রয়েছেন৷

ইতিমধ্যেই বিদেশি ছাত্র-ছাত্রীদের সুবিধার্থে স্পেশাল হস্টেল তৈরির পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে৷ এই পরিকল্পনা অনুমোদন হয়ে গেলেই কলকাতা পুরসভা থেকে কাজ শুরু হয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন উপাচার্য৷ ছাত্রীদের জন্য সাউথ সিঁথিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেনা জমিতে হস্টেল তৈরি করা হবে৷ আর ছাত্রদের জন্য নিউটাউনে নতুন ক্যাম্পাসে তৈরি হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন৷

©Kolkata24x7 এই নিউজ পোর্টাল থেকে প্রতিবেদন নকল করা দন্ডনীয় অপরাধ৷ প্রতিবেদন ‘নকল’ করা হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে
—-

—-

Loading...
You might also like