Business is booming.

খালেদার চিকিৎসার ফাইল প্রধানমন্ত্রীর কাছে কেন যাবে: কাদের

বিএনপির
অভিযোগ তোলার পরদিন রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সম্মেলনে বক্তৃতায় একথা বলেন
ক্ষমতাসীন দলের এই নেতা।

বিএনপি
মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শনিবার বলেছিলেন, কারাবন্দি খালেদা জিয়াকে ইউনাইটেড
হাসপাতালে স্থানান্তরের সুপারিশ করেছেন চিকিৎসকরা, সেই ফাইল প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে
অনুমোদনের জন্য আটকে আছে বলে তারা খবর পেয়েছেন।

মন্ত্রী
কাদের বলেন, “বেগম জিয়া অসুস্থ হলে জেল কর্তৃপক্ষ তার চিকিৎসার যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আছে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আছে। এখানে প্রধানমন্ত্রীর অফিসে
কাগজপত্র কেন যাবে?

“তারা
(বিএনপি) মিথ্যার উপর ভর করে রাজনীতি করে, সব জায়গায় মিথ্যাচার করে। এমন একটা ভাব যেন
প্রধানমন্ত্রীর কাছে কাগজ গেছে, তিনি সই করলে তাদের উদ্দেশ্য সফল হয়ে যাবে। তাতে কি
বেগম জিয়া সুস্থ হয়ে যাবেন?”

সরকার
বিএনপি চেয়ারপারসনের চিকিৎসায় যথাযথ ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলে অভিযোগও উড়িয়ে দেন কাদের;
পাশাপাশি বিএনপির চিকিৎসকদের বক্তব্য নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করেন তিনি।

“জাতীয়তাবাদী
চিকিৎসকরা যখন চিকিৎসার সার্টিফিকেট দেবেন, সেখানে তো সন্দেহ থাকাটা স্বাভাবিক। এই  চিকিৎসক চিকিৎসার প্রকৃত চিত্রটা না বলে রাজনৈতিকভাবে
একটা রাজনৈতিক সার্টিফিকেট দিয়ে দিবে, এটা কি গ্রহণযোগ্য?

“সত্যিকারের
যে চিত্র, এই ব্যাপারে যথাযথ কর্তৃপক্ষ যথাযথ ব্যবস্থা নেবে। সরকারের অমানবিক হওয়ার
কোনো সুযোগ নেই। আর শেখ হাসিনার সরকার অমানবিক সরকার নয়। তারা আমাদের সাথে যে ব্যবহার
করেছেন, তার পাল্টা ব্যবহার কিন্তু আমরা করিনি।”

খালেদার
মুক্তির দাবি সরকারকে জানিয়ে কোনো লাভ নেই বলে বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে বলেন আওয়ামী
লীগ সাধারণ সম্পাদক।

“খালেদা
জিয়া কারাগারে আছেন আদালতের বদৌলতে। সেটা নিয়েও তারা রাজনীতি করছেন। যেন সরকারই খালেদা
জিয়াকে দণ্ড দিয়েছে। আমরা তাকে দণ্ডও দিইনি, আমরা তাকে দণ্ড থেকে মুক্তিও দিতে পারব
না।”

Loading...
You might also like