Business is booming.

ভোট সুষ্ঠু না হলে গাজীপুর-খুলনা থেকেই আন্দোলন; নোমান

রোববার দুপুরে এক আলোচনা সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, “গাজীপুরে সন্ত্রাস চলছে আওয়ামী লীগের, যুবলীগের, ছাত্রলীগের। সেখানে তাদের বেলায় আইন অমান্য হচ্ছে না। আর বিএনপিকে যারা সমর্থন করছেন তাদের ৪০/৪৫ জন নেতাকর্মী একসাথে একটি ঘরে কথা বলছিল, তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

“এখানেও একটা বিমাতাসুলভ আচরণ চলছে। নির্বাচন কমিশন দুই চোখে দুই রকম করে দেখছে। আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, সেখানে সুষ্ঠু নির্বাচন না হলে ওই দুই সিটি থেকেই আন্দোলনের সূচনা হবে।”

দুই সিটিতে ধানের শীষের প্রতীকের মেয়র প্রার্থীর বিজয়ের ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করে নোমান বলেন, “অতীতেও আমরা জিতেছি, এবার সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আমরা আশাবাদী যদি সরকার কারচুপি না করে।”

আগামী ১৫ মে গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে। 

দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর চিত্র তুলে ধরে সাবেক মন্ত্রী বলেন, “আজকে ব্যাংকগুলোতে লুটপাট চলছে। যেখানে জনগণের অর্থ লুটপাট হচ্ছে দিনের বেলা, এই দিনের বেলা লুটপাট হওয়া মানে আওয়ামী লীগ উলঙ্গ হয়ে গেছে। তাদের আর লজ্জাশরম নাই। সবগুলো ব্যাংকের অবস্থা খারাপ। ব্যাংকের অবস্থা খারাপ মানে জনগণের অবস্থা খারাপ।” 

এই অবস্থা থেকে উত্তরণে জনগণকে সরকার পরিবর্তনে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে জিয়া পরিষদের উদ্যোগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও জিয়া পরিষদের চেয়ারম্যান কবীর মুরাদের মুক্তির দাবিতে এই আলোচনা সভা হয়।

সংগঠনের সহ-সভাপতি আব্দুল কুদ্দুসের সভাপতিত্বে ও জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব আবদুল্লাহ হিল মাসুদের পরিচালনায় আলোচনা সভায় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মাহবুবউদ্দিন খোকন, সহ-প্রচার সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীম, জিয়া পরিষদের মো. শফিকুল ইসলাম, এমতাজ হোসেন, লুৎফর রহমান, দেলোয়ার হোসেন, আলিমুজ্জামান, আবুল কালাম আজাদ, শহিদুল ইসলাম শহিদ, আখতারুজ্জামান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

Loading...
You might also like