Business is booming.

দুই দলের ব্যাটিং ব্যর্থতার মাঝে উজ্জ্বল “উথিত সূর্য”, ম্যাচে রেকর্ড গড়লো প্রাক্তন নাইট বোলার

 

অজয় রায়, বাংলা hunt : এপ্রিল ১৯, ২০১৮, মোহালিতে পঞ্জাবের মুখোমুখি হায়দ্রাবাদ, সেই দিন গেইলের ব্যাটিং দাপটের কাছে ছারখার হয়ে গেছিল কেন উইলিয়ামসন এর দলের বোলিং লাইন – আপ। “আফগান – স্পিনার” রশিদ খান কে সেইদিন কার্যত দুরমুশ করেছিলেন “ক্যারিবিয়ান দৈত্য”। ওইদিন ঘরের মাঠে প্রথম বার হায়দ্রাবাদ কে হারিয়েছিল পঞ্জাব।

এপ্রিল ২৬, ২০১৮, রাজীব গাঁধী ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়াম। ফের আরেক বার মুখোমুখি দুই দল। বদলার ম্যাচে ঘরের মাঠে পঞ্জাব এর বিরুদ্ধে একটি দুর্দান্ত জয় তুলে নিল হায়দ্রাবাদ। এইদিন টসে জিতে অশ্বিন সানরাইজার্স কে ব্যাটিং করতে পাঠায়। এইদিন ব্যাটে নেমে ব্যর্থ হায়দ্রাবাদের ব্যাটিং লাইন আপ। সৌজন্যে প্রাক্তন কলকাতার মিডিয়াম পেসার অঙ্কিত রাজপুত।

তার বোলিং এর সামনে কার্যত দিশেহারা ধাওয়ানরা। এই দিন কার্যত একাই শেষ করে দিল উইলিয়ামসনদের। ৪ ওভারে মাত্র ১৪ রান দিয়ে তিনি নিলেন ৫ উইকেট। এর সাথে সাথে আনক্যাপড প্লেয়ার হিসেবে পাঁচ উইকেট নেওয়ার রেকর্ড গড়লেন তিনি। এইদিন ম্যাচের সেরা নির্বাচিত হন এই প্রাক্তন নাইট মিডিয়াম পেসার। হায়দ্রাবাদের হয়ে এইদিন সর্বোচ্চ রান করে মনিশ পান্ডে।

মূলত তার ৫১ বলে ৫৪ রানের উপর ভর করে ১৩২ রানে প্রথম ইনিংস শেষ করে হায়দ্রাবাদ। এইদিনো ব্যর্থ বাংলার ঋদ্ধিমান সাহা।
এত কম রানের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে শুরুটা ভালোই পঞ্জাব। গেইল – রাহুলের ওপেনিং জুটি ফের আরেকটা জয়ের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিল কিংসদের। সমস্যার সূত্রপাত হয় রাহুলের আউট হলে। ম্যাচের ৭.৫ ওভারের মাথায় রাশিদ খানের বলে আউট হয়ে রাহুল ডাগ আউটে ফেরার পর ম্যাচের রং বদলে যায়।

হঠাৎ করেই ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুখোমুখি হয় প্রীতির দল। এইদিন ফের দুরন্ত বোলিং করলেন রাশিদ খান। নিলেন তিন উইকেট। ফের সূযোগ পেয়ে ভালো পারফরম্যান্স করলেন ভারতীয় পেসার থাম্পি। নিলেন গেইলের উইকেট। এছাড়া ভালো বোলিং করেছে সন্দীপ শর্মা, সাকিব আল হাসান। দুইজনে দুটি করে উইকেট নেন। এই দিন যুবরাজ সিং এর জায়গায় দলে সুযোগ পান মনোজ তিওয়ারি। তবে দাগ কাটতে ব্যর্থ এই ব্যাটসম্যান। ৫ বলে ১ রান করে একটি অযথা শর্ট খেলে ক্যাচ আউট হন প্রাক্তন নাইট ব্যাটসম্যান। ফলস্বরুপ ১৩৩ রান তাড়া করতে নেমে ১১৯ এ অল আউট হয়ে যায় পঞ্জাব।  

এমন একটি ম্যাচ হেরে কার্যত মন মরা পঞ্জাব ক্যাপ্টেন অশ্বিন। সামনে সাত দিনে তাদের আর কোনো ম্যাচ নেই। তাই এই কয়দিনে নিজেদের ত্রুটি গুলো শুধরে টিম জয়ের পথে ফিরবে এমনটাই আশা করছেন তিনি।

Loading...
You might also like